News

জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগারে নতুন সেবা ‘টয় ব্রিক’ উদ্বোধন

মোঃ মাসুদ রানা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকেঃ

২৭ অক্টোবর রোজ রবিবার সকালে জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগার, চাঁপাইনবাবগঞ্জে শিশুদের উপযোগী খেলনা ইট তথা ‘টয় ব্রিক’ সেবা উদ্বোধন করা হয়।  উক্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন সরকারি দপ্তর প্রধান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান ও নির্ধারিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে মনোনীত ২৫ জন শিক্ষার্থী।

জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগারে নতুন সেবা ‘টয় ব্রিক’ উদ্বোধন

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তৃতা প্রদান করেন গণপূর্ত বিভাগের উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী জনাব মোঃ জাহিদুল ইসলাম, নবাবগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজের ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক জনাব মোঃ আবু রায়হান, জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা, সকরারি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের বাংলা বিভাগের প্রশিক্ষক জনাব ড. মোঃ ইমদাদুল হক, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, প্রধান শিক্ষক গ্রিন ভিউ উচ্চ বিদ্যালয় এবং গণগ্রন্থাগার অফিস প্রধান।

বক্তৃতায় বক্তারা নতুন উদ্বোধনকৃত ব্যতিক্রমী এ সেবার উত্তোরত্তর প্রচার, প্রসার ও এর সফল ব্যবহারের বিষয়ে শুভ কামনা জানান। তাছাড়াও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় একমাত্র সরকারি গণগ্রন্থাগারের মাধ্যমে এমন একটি সেবা চালু করায় গণগ্রন্থাগার কর্তৃপক্ষকে আন্তরিক অভিবাদন জানান। বক্তারা আরো উল্লেখ করেন এ সেবাটি শিশুদের মানসিক উৎকর্ষ সাধনে গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব রাখবে। টয় ব্রিক বা খেলনা ইট ব্যবহার করে শিশুরা দলীয়ভাবে বিভিন্ন কাঠামোর প্রতিকৃতি তৈরীর চেষ্টার মাধ্যমে একে অপরের সাথে গঠনমূলক মতামত আদান করতে পারবে বলে উল্লেখ করেন বক্তারা। নতুন এ টয় ব্রিক সেবা চালু করার অন্যতম উদ্দেশ্য খেলার মাধ্যমে শিশুদের সৃষ্টিশীল মনের বিকাশ ঘটানো। শিশুরা যখন টয় ব্রিক নিয়ে কোন একটি নির্দিষ্ট কাঠামো বা প্রতিকৃতি তৈরী করবে তখন তারা মনের ভেতর প্রথমেই সেই কাঠামো নিয়ে একটি কাল্পনিক ছবি তৈরী করার চেষ্টা করবে। এই কাল্পনিক ছবি তৈরীর প্রচেষ্টা শিশুকে তাঁর সৃজনশীলতার চিন্তার জগতে প্রবেশে করাবে। তাছাড়া শিশুরা যখন দলগতভাবে কোন কাঠামো তৈরী করতে যাবে তখন তারা সকলের সাথে তাঁদের মতামত আদান প্রদান করা সহ বিভিন্ন প্রকার পরামর্শ দেয়া বা নেয়া শুরু করবে। এই দলগত অংশগ্রহণে তাঁদের মধ্যে দলগতভাবে কাজ করার একটা স্পৃহা তৈরী হবে।

গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তরের সাথে অংশীদারিত্বে ‘লাইব্রেরিজ আনলিমিটেড’ প্রকল্পের অধীনে ব্রিটিশ কাউন্সিল সারা দেশের ৭০টি সরকারি গণগ্রন্থাগারের প্রতিটিতে ১৫ হাজার টয় ব্রিক প্রদান করে। তারই অংশ হিসেবে জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগারও ১৫ হাজার টয় ব্রিক পায়। উক্ত টয় ব্রিক জেলার সকল শিশুদের নিয়মিত ব্যবহারের জন্য আজকে আনুষ্ঠানিকভাবে সেবাটি উদ্বোধন করা হয়। গণগ্রন্থাগারের অফিস প্রধান লাইব্রেরিয়ান জনাব মোঃ মাসুদ রানা জানান পরবর্তীতে সাপ্তাহিকভাবে এটি নিয়মিত ব্যবহারের সুযোগ প্রদান করা হবে। সকল শিশুর জন্য এ সেবা উন্মুক্ত থাকবে। সাপ্তাহিক নির্দিষ্ট দিনে উক্ত টয় ব্রিক শিশু কর্নারে দেয়া থাকবে।  চাহিদা মতো যে কোন শিশু সেগুলো নিয়ে খেলার পর পুনরায় গ্রন্থাগারকর্মীকে যথাযথভাবে ফেরত দিবে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close